করোনা স্বাস্থ্য

৩০ মিনিটে অক্সিজেন বিল সাড়ে ৮৬ হাজার!

রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) চিকিৎসার নামে স্বেচ্ছাচারিতা চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, সরকারিভাবে এই হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়ার কথা থাকলেও রোগীদের ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে লাখ টাকার বিল।

মাত্র ৩০ মিনিটের অক্সিজেন বিল ধরা হয়েছে সাড়ে ৮৬ হাজার টাকা। অক্সিমিটারের ভাড়া ৮ হাজার। রাজধানীর এক বেসরকারি হাসপাতালে মাত্র ১৫ দিনে সাড়ে ৩ লাখ টাকা আদায়ের অভিযোগ কোভিড রোগী মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হকের। তবে বার বার চেষ্টা করেও এ বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

করোনা আক্রান্ত মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক সুচিকিৎসার জন্য গত ৩০ মে চট্টগ্রাম থেকে এসে ভর্তি হন রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে। তার অভিযোগ, সুচিকিৎসা তো দূরের কথা ১৫ দিনে সাড়ে ৩ লাখ টাকা খরচ করেও পাননি কাঙ্ক্ষিত সেবা। সেই সঙ্গে অযৌক্তিক বিল আদায়সহ নানা অব্যবস্থাপনার অভিযোগ করেন তিনি।

হাসপাতালের দেয়া বিলের রসিদে দেখা যায়, ১৫ দিনে তার চিকিৎসা খরচ ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৫৮ হাজার টাকা। এর মধ্যে কেবিন ভাড়া ১ লাখ ১৯ হাজার, চিকিৎসক ভিজিট ৪৯ হাজার, পালস অক্সিমিটার বিল ৮ হাজার ১০০ ও অক্সিজেন বিল ধরা হয় ৮৬ হাজার ৪শ’ টাকা। অথচ তার দাবি তিনি নিজের কেনা পালস অক্সিমেটর ব্যবহার করেছেন এবং ৩ দিনে অক্সিজেন নিয়েছেন মাত্র ৩০ মিনিট।

মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক বলেন, আমার অক্সিমিটার আমি ব্যবহার করেছি। এটা আমার হাতেই থাকতো। ডাক্তার বা নার্সের দেখা তো পাইনি। অভিযোগের বিষয়ে জানতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ফোনে এবং ক্ষুদে বার্তায় যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি